বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
বিচারকদের শৃঙ্খলাবিধির গেজেট ঃ বিচারকদের ওপর মাতাব্বরি করবেন আইনমন্ত্রী : ব্যারিস্টার মইনুল  » «   প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে অবাধে আসা-যাওয়া, তারপর যা ঘটল  » «   মাদক নিয়ে বিরোধে প্রবাসী দুই ভাই খুন: পুলিশ  » «   আগামী নির্বাচনে আমরা জয়লাভ করব: প্রধানমন্ত্রী  » «   অমানবিক: স্বামীকে খুন, সার্জারি করে প্রেমিককে স্বামীর চেহারা দিলেন স্ত্রী!  » «   সোনালী ব্যাংকের নামফলকে এখনো ‘ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক অব পাকিস্তান’  » «   নারীদের মাঠে যেতে মানা করায় ইমামসহ তিনজন রিমান্ডে  » «   জেরুজালেম প্রশ্নে ওআইসি চুপ থাকতে পারে না: প্রেসিডেন্ট  » «   আওয়ামী লীগ ত্যাগ করলেন ২৬৯ জন  » «   নিরাপদ পৃথিবীর জন্য সম্মিলিত প্রচেষ্টা চান প্রধানমন্ত্রী  » «   জেরুজালেমকে রাজধানী পাওয়ার অধিকার কেবল ফিলিস্তিনিদের: সৌদি  » «   ‘আকায়েদ বাংলাদেশি নামের কলঙ্ক’  » «   জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী ঘোষণা করবে ওআইসি  » «   অভিশপ্ত চেয়ার: বসলেই মৃত্যু নিশ্চিত  » «   আমেরিকায় গিয়ে জঙ্গি হয়েছে আকায়েদ: পুলিশ  » «  

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর সন্তান প্রসব

1512658163

গাজীপুর: গাজীপুরের শ্রীপুরে তেলিহাঠি ইউনিয়নের সাইটালিয়া গ্রামে ধর্ষণে শিকার হওয়া অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী (১২) বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কন্যা সন্তান প্রসব করেছে। বর্তমানে মা ও নবজাতক উভয়ই সুস্থ রয়েছে।
কিশোরীর স্বজনরা জানান, বিভিন্ন ঘটনার আলোকে মাকে ছাড়া কিশোরী তার বাবাকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী টেংরা গ্রামের ফুফুর বাড়িতে গত একমাস ধরে অবস্থান করছিল। গতকাল বুধবার বিকালে কিশোরীর প্রসব বেদনা শুরু হলে তাকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। পরে রাতে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসার জন্য তাকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই স্বাভাবিকভাবে কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।
শ্রীপুর উপজেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা মঈনুল হক খান জানান, সরকারিভাবে কিশোরীর প্রসব পূর্ববর্তী ও পরবর্তী সব চিকিৎসার দায়িত্ব থাকায় রাতে আবাসিক চিকিৎসক হাবীবা সুলতানার অধীনে সুস্থ স্বাভাবিকভাবে কন্যা সন্তান প্রসব করে কিশোরী। বর্তমানে উভয়ই সুস্থ রয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ২২ সেপ্টেম্বর ধর্ষণে কিশোরীর অন্তঃসত্ত্বার ঘটনায় শ্রীপুর থানায় উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের সাইটালিয়া গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে আমান উল্লাহকে (২৬) আসামি করে শ্রীপুর থানায় মামলা হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মূল অভিযুক্ত আমান উল্ল্যাহ্কে আটক করতে না পারলেও সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে কিশোরীর আত্মীয় উপজেলার সাইটালিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে হুমায়ুন কবিরকে গত ১৯ নভেম্বর গ্রেপ্তার করে শ্রীপুর থানা পুলিশ।
এদিকে কিশোরীর মা হওয়ার খবরে ইতিমধ্যে গাজীপুর জেলা প্রশাসক দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির সরকারিভাবে কিশোরী ও তার সন্তানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহেনা আকতার শীর্ষনিউজকে বলেন, সংবাদ পেয়ে রাতেই ওই কিশোরী মা ও নবজাতককে দেখার জন্য শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপস্থিত হয়েছি। খোঁজ খবর নিয়েছি, দু’জনেই সুস্থ আছে।

 

ফতুল্লায় কর্মচারীর মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে রেস্টুরেন্ট মালিক গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জ  সদর উপজেলা এলাকায় কর্মচারীর ৯ বছরের শিশুকন্যা ধর্ষণের অভিযোগে ফতুল্লায় রেস্টুরেন্টের মালিক আল আমিন শরীফকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ ।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে ফতুল্লার মাহমুদপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে রেস্টুরেন্টের মালিক ধর্ষক আল আমিন শরীফকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষিতা শিশুর বাবা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তারকৃত আল আমিন শরীফ পটুয়াখালীর দশমিনা থানার চানপুরা এলাকার আব্দুল মোতালেব শরীফের ছেলে। তিনি পরিবার নিয়ে ফতুল্লার মাহমুদপুর এলাকাস্থ তাইজুদ্দিন মার্কেট সংলগ্ন জামাল কামালের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন।

ঘটনা ও মামলার বরাত দিয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল উদ্দিন জানান, চাঁদপুরের শাহরাস্তি থানার দেবপাড়ার জনৈক রেস্টুরেন্ট কর্মচারী স্বপরিবার নিয়ে ফতুল্লার মাহমুদপুর এলাকার নাঈমের বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছিল। আর সেখানে থেকে মাহমুদপুর এলাকায় অবস্থিত আল আমিন শরীফের ভাতের হোটেলের কর্মচারী হিসেবে কাজ করতো শিশুর বাবা। আর শিশুর মা দেশের বাহিরে প্রবাসী জীবন যাপন করেন। শিশুটির বাবা যখন হোটেলে থাকেন তখন শিশুটি বাসায় একা থাকে। যার কারণে বেশির ভাগ সময় আল আমিন শরীফের বাসার সামনে তার ছেলে মেয়েদের সাথে খেলাধুলা করে। এমনকি প্রায় সময় শিশুটি আল আমিন শরীফের বাসায় গিয়ে ঘুমিয়ে পড়লে রেস্টুরেন্টের কাজ শেষ করে শিশুটির বাবা তাকে নিয়ে যায়।

গত ২৯ নভেম্বর শিশুটি খেলাধুলা করে আল আমিন শরীফের বাসায় গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। এ সুযোগে আল আমিন শরীফ ওই দিন রাত ৮টার দিকে শিশুটিকে রুমে একা পেয়ে  ধর্ষণ করে। এভাবে শিশুটিকে ভয় দেখিয়ে ৪/৫দিন ধর্ষণ করা হয়েছে বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

পরে শিশুটি অসুস্থ হয়ে যাওয়ায় কান্নাকাটি করে এবং তার বাবাকে বলে আল আমিন শরীফ তাকে ধর্ষণ করেছে।

ওসি আরও জানান, শিশুটির বাবা বৃহস্পতিবার সকালে বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করলে ঘটনার তদন্ত করে দুপুরে মামলা দায়ের করা হয়। পরে বিকেলে এসআই রাজু মন্ডল ধর্ষক আল আমিন শরীফকে গ্রেপ্তার করে।

 

মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে দ্বিখণ্ডিত হলো বাবা

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে ট্রেনে কাটাপড়ে দ্বিখণ্ডিত হলেন গোলাম মোস্তফা (৩৮) নামে এক বাবা। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কোটচাঁদপুর রেলস্টেশনে।

স্বজনরা জানান, প্রতিবন্ধী মেয়ে ফাতেমা তার নানির সঙ্গে খুলনায় গিয়েছিল ডাক্তার দেখাতে। রাজশাহীগামী আন্তঃনগর ট্রেন সাগরদাঁড়ী এক্সপ্রেসে আজ সন্ধ্যায় কোটচাঁদপুরে ফিরে আসেন তারা। সন্ধ্যা ছয়টা ২০ মিনিটে ট্রেনটি কোটচাঁদপুর স্টেশনে থামে। মেয়েকে নিতে এসেছিলেন ইনজিনভ্যানচালক গোলাম মোস্তফা।

প্লাটফরমে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে মোস্তফা তড়িঘড়ি করে উঠতে যান ট্রেনের কামরায়। এ সময় ট্রেনটি প্লাটফরম ছেড়ে যাচ্ছিল। পা পিছলে প্লাটফরম ও ট্রেনের মধ্যবর্তী ফাঁকে পড়ে যান মোস্তফা। তার কোমরের ওপর দিয়ে চলে যায় ট্রেনের চাকা। ঘটনাস্থলে মারা যান মোস্তফা।

কোটচাঁদপুর রেলস্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা জানান, রেলপুলিশকে (জিআরপি) খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এসে মরদেহ নিয়ে যাবে ময়নাতদন্তের জন্য। হতভাগ্য গোলাম মোস্তফা মহেশপুর উপজেলার জলুলী গ্রামের সেকম আলীর ছেলে।

কণ্ঠশিল্পী মমতাজের ভাইয়ের বাড়ি থেকে স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার

1512660702মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জ সংসদ সদস্য কন্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমের ভাই এবারত হোসেনের বাড়ি থেকে বৃহস্পতিবার ঝুমা আক্তার (১৩) নামে এক স্কুল শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি করেছে। ঝুমা আক্তার সিংগাইরের জয়মন্টপে এবারত হোসেনের বাড়িতে থেকে পড়াশুনার পাশাপাশি গান শিখতো।
পুলিশ ও সংস্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে সিংগাইর উপজেলার ধল্লা গ্রামের রিয়াজুল হকের মেয়ে ঝুমা আক্তার। তার মা কাঞ্চন মালা বিদেশে থাকেন। বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করায় ঝুমা  আক্তার প্রায় তিন বছর ধরে জয়মন্টপের  সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের ভাই এবারত হোসেনের বাসায় আশ্রিত হিসাবে থাকেন।
এবারত হোসেনও গান বাজনা করেন।  ঝুমা এই বাড়ির ছোট খাট ফাইফরমাসের পাশাপাশি স্কুলেও লেখাপড়া করে। গত পিএসসি পরীক্ষায় সে অংশ নিয়েছে। এবারতের মেয়ে এনাতাজ ঝুমার সহপাঠী ছিল। ছেলে ফিরোজ সিংগাইর কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র।
এবারত হোসেন জানান বৃহস্পতিবার ঘুম থেকে উঠে ঝুমাই রান্নাবান্না করে। এবারত তার স্ত্রী ফরিদা বেগম ,ছেলে ফিরোজ ও মেয়ে এনাতাজসহ ঝুমা একসাথে খাওয়া দাওয়া করেন। এর পর এবারত তার  ছেলে ফিরোজকে নিয়ে তাদের আরেকটি বাড়িতে যান। খাওয়া দাওয়ার পর তার স্ত্রী ও মেয়ে বাড়ির আঙ্গিনায় রোদ পোহাচ্ছিলেন। সকাল দশটার দিকে ফিরোজ বাড়িতে ফিরে এসে নিজের ঘরে ঢুকে ঝুমাকে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখেন। এবারত বলেন ঘটনাটি আত্বহত্যা। তবে আত্বহত্যার কারন সম্পর্কে তিনি কিছু বলতে পারেনি।
ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করেন সিংগাইর থানার এসআই জিয়াউদ্দিন উজ্জ¦ল। তিনি জানান ঝুমার মৃতদেহ  ঝুলন্ত অবস্থায় পান। তারাই ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামান। ফ্যান থেকে একটি শাড়ি কাপড় ঝুমার গলায় জড়ানো ছিল। তিনি আরও বলেন ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর কারন নিশ্চিত হওয়া যাবে।
ঝুমার বাবার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে তার মামা আবু সাইদ এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

শীর্ষনিউজ

সংবাদটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ সংবাদ