সোমবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে সুরমায় বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৩ জন নিহত  » «   সিলেট থেকেই নির্বাচনের প্রচার শুরু করবেন হাসিনা  » «   টার্নিং পয়েন্ট খালেদার মামলা  » «   এবার সৌদি-ইসরাইল রেললাইন নির্মাণের পরিকল্পনা চূড়ান্ত  » «   ভারতীয় স্কুলগুলোতে কোরআন শিক্ষার তাগিদ দিলেন মানেকা গান্ধী  » «   প্রত্যাশিত দেশ গড়তে চাই কাঙ্খিত নেতৃত্ব : শিবির সেক্রেটারি  » «   ঢাবি সিনেটে বিএনপিপন্থীদের ভরাডুবির কারন ফাঁস !  » «   সিলেটের আবাসিক হোটেল থেকে তরুণ-তরুণীর লাশ উদ্ধার  » «   ফ্রান্সে প্রথম বাংলাদেশি কাউন্সিলর শারমিন  » «   কবে, কে হচ্ছেন ২২তম প্রধান বিচারপতি?  » «   যে ছবি নিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কে বিতর্কের ঝড়  » «   শিক্ষামন্ত্রণালয়ের ‘নিখোঁজ’ দুই কর্মকর্তাসহ তিনজন গ্রেফতার  » «   এবার হজে যেতে পারবেন ১ লাখ ২৭ হাজার বাংলাদেশি  » «   এমপিপুত্রের শেষ স্ট্যাটাস ‘তোর জন্য চিঠির দিন..’  » «   নেতানিয়াহুর গ্রেফতার দাবিতে ইসরাইলে লাখো জনতার বিক্ষোভ  » «  

তরুণীকে ‘ছিঁড়ে খেল’ তারই পোষা কুকুরেরা!

y90এ যেন উলট পুরাণ। কুকুরের প্রভুভক্তির কথা সুপ্রাচীন কাল থেকে সর্বজনবিদিত। কিন্তু আমেরিকার ভার্জিনিয়া প্রদেশের গুচল্যান্ডের তরুণীর মৃত্যু কিন্তু উল্টো ছবি সামনে আনছে। কেননা তিনি প্রাণ হারিয়েছেন তাঁরই পোষ্যদের আঘাতে, এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত পারিপার্শ্বিক যা কিছু তথ্যপ্রমাণ মিলেছে তাতে এ ধারণাই স্পষ্ট হচ্ছে পুলিশের কাছে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, বেঠানি লিন স্টিফেন্স নামের ওই তরুণীর কুকুর-প্রীতি ছিল মারাত্মক। বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি তাঁর অতিকায় দু’টি পিট বুল কুকুরকে নিয়ে বড় রাস্তা থেকে আধ মাইল দূরে বেড়াতে গিয়েছিলেন। ওই এলাকা বেশ ফাঁকা। অনেকটা জঙ্গলের আদল আছে। সেখানেই তাদের হাঁটাতে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু আর ফিরে আসেননি।
পরে খুঁজতে বেরিয়ে আবিষ্কৃত হয় কুকুরেরা একটি ছিন্নভিন্ন দেহকে ঘিরে রেখেছে। দূর থেকে ওই দেহটি পশুর দেহ বলে মনে হলেও সামনে গিয়ে দেখা যায় দেহটি হতভাগ্য বেঠানি স্টিফেন্সের!

গুচল্যান্ডের শেরিফ জিম অ্যাগনিউ শুক্রবার সংবাদমাধ্যমের কাছে ঘটনাটি বিধৃত করে জানান, ‘‘আমার ৪০ বছরের পেশাগত জীবনে এমন কেস আগে কক্ষণও দেখিনি। আশা করি, যেন আর দেখতেও না হয়।’’
২২ বছরের স্টিফেন্সের শরীরের ক্ষত পরীক্ষা করে দেখা যায় তিনি আত্মরক্ষারও চেষ্টা করেছিলেন। তদন্তকারীদের অনুমান, কুকুর দু’টি প্রথমেই স্টিফেন্সের গলা ও মুখের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে ও দাঁত-নখ দিয়ে ফালাফালা করে দিতে থাকে। কিন্তু কেন কুকুরগুলি আচমকা নিজের মালকিনকেই এ ভাবে আক্রমণ করল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে তারাই যে স্টিফেন্সকে হত্যা করেছে তাতে কোনও সন্দেহ নেই।

এমন অস্বাভাবিক একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

কুকুরগুলিকে অনেক কষ্টে অচেতন করে রাখা হয়েছে। স্টিফেন্সের আত্মীয়রা দাবি তুলেছেন ওই কুকুরগুলিকে মেরে ফেলা হোক।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

সর্বশেষ সংবাদ